মেয়েদের ফিটনেস ধরে রাখার উপায় সম্পর্কিত কার্যকরী টিপস

সাধারণত ছেলেদের তুলনায় মেদের ফিটনেস তাড়িতাড়ি নষ্ট হয়ে যায়। বয়স বাড়ার সাথে সাথে মেয়েদের ফিটনেস ঠিক থাকে না। কিন্তু কিছু নিয়ম অনুসরণ করলে ফিটনেস ধরে রাখা সম্ভব। আজকের এই আর্টিকেলে মেয়েদের ফিটনেস ধরে রাখার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। বিশেষ করে এই আর্টিকেলটি মেয়েদের জন্য শেয়ার করা। তবে চাইলে ছেলেরাও আর্টিকেলে শেয়ার করা টিপসগুলো অনুসরণ করতে পারেন। 

কেননা উক্ত শেয়ার করা টিপসগুলো শুধুমাত্র মেয়েদের জন্য কার্যকর না। ছেলেদের ক্ষেত্রেও এই টিপসগুলো অনেক কাজে আসবে এবং শরীরের ফিটনেস ঠিক রাখা যাবে। তাহলে চলুন আজকের আলোচনার মূল বিষয় মেয়েদের ফিটনেস ঠিক রাখার উপায় সম্পর্কে আলোচনা করি।


মেয়েদের ফিটনেস ধরে রাখার উপায়


মেয়েদের যতই বয়স বাড়তে থাকে ততই ফিটনেস অবনতি হতে থাকে। অর্থাৎ, মেয়েদের ওজন বয়স বাড়ার সাথে সাথে অস্বাভাবিক হারে বাড়তে থাকে। ফিটনেসহীন যে কাউকে দেখতে অনেকটা অসুন্দর লাগে। কিন্তু, যদি নিয়মিত কিছু সাধারণ টিপস অনুসরণ করেন সেক্ষেত্রে দীর্ঘকাল পর্যন্ত ফিটনেস ধরে রাখতে পারবেন। 


মেয়েদের ফিটনেস ধরে রাখার উপায় হিসেবে যে টিপসগুলো অনুসরণ করতে হবে। প্রতিদিন নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে এবং বেশি ফ্যাট জাতীয় খাবার বাদ দিয়ে প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেড জাতীয় খাবার খেতে হবে। নিয়মিত কিছু সাধারণ ব্যায়াম এবং খাবার তালিকা ঠিক রাখলে দীর্ঘ দিন পর্যন্ত অনায়াসে ফিটনেস ধরে রাখা যাবে।


মেয়েদের ফিটনেস ধরে রাখার ব্যায়াম


ফিটনেস ধরে রাখার জন্য ব্যায়ামের বিকল্প নেই। যদি দীর্ঘ সময় পর্যন্ত সুন্দর ফিটনেস ধরে রাখতে চান তাহলে অবশ্যই নিয়মিত কিছু ব্যায়াম করতে হবে। যে ব্যায়ামগুলো বাড়িতেই করা যাবে। এছাড়া জিমে গিয়েও ব্যায়াম করতে পারেন। আর যাদের জিমে যাওয়ার মত সময় নেই তারা বাড়িতেই এই ব্যায়ামগুলো করতে পারবেন। 


ফিটনেস ঠিক রাখতে যে ব্যায়ামগুলো করা যাবে -

  • Yoga (ইয়োগা বা যোগ ব্যায়াম)
  • Spot Running (স্পট রানিং ব্যায়াম)
  • Squat (স্কুয়াট ব্যায়াম)
  • Push Up (পুশ আপ ব্যায়াম)
  • Tricep Dips (ট্রাইসেপ ডিপস ব্যায়াম)
  • Chin Ups (চিন আপস্ ব্যায়াম)
  • Crunches (ক্রাঞ্চেস ব্যায়াম)

এই ব্যায়ামগুলো প্রতিদিন সকালে খাবার খাওয়ার আগে করতে হবে। এছাড়া এই ব্যায়ামগুলো সন্ধ্যা হওয়ার আগে বিকালের দিকেও করা যেতে পারে। তবে সকালে ব্যায়ামগুলো করতে পারলে বেশি ভালো হয়। যদি নিয়ম মেনে প্রতিদিন এই ব্যায়ামগুলো করা যায় তাহলে মেয়েরা অনায়াসে ফিটনেস ধরে রাখতে পারবে।


মেয়েদের ফিটনেস ধরে রাখার খাবার


শুধু নিয়মিত ব্যায়াম করলে হবে না। এর পাশাপাশি খাবারের দিকে নজর দিতে হবে। প্রতিদিন প্রচুর ফ্যাট জাতীয় খাবার বাদ দিয়ে প্রাটিনযুক্ত ও কার্বোহাইড্রেড জাতীয় খাবার খেতে হবে। ফ্যাট জাতীয় খাবার যেহেতু শরীরের ওজন বাড়াতে বেশি সাহায্য করে তাই এই জাতীয় খাবার কম খেতে হবে। 


প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেড জাতীয় খাবারের মধ্যে -

  • কলা
  • বাদাম
  • আপেল
  • ব্রাউন ব্রেড
  • কিচমিচ
  • দুধ
  • ডিম
  • আখরোট

নিয়মিত ব্যায়াম করার পর প্রতিদিন এই খাবারগুলো খেতে পারেন। এই খাবারগুলোতে প্রচুর প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেড থাকে। এছাড়া কলা, আপেল, বাদাম ও আখরোট একসাথে গ্রাইন্ডার মেশিনে জুস বানিয়ে খেতে পারেন। 


Also Read:


পারফেক্ট ফলাফল পেতে হলে ৪ পিস কলা, কাঁচা বাদাম, ১ গ্লাস দুধ, সিদ্ধ ডিমের সাদা অংশ এবং আপেল, ব্রাউন ব্রেড, কিচমিচ ও আখরোট পরিমাণ মত ব্যায়াম করার পর খেতে হবে। সবগুলো খাবার প্রতিদিন একসাথে খাওয়ার প্রয়োজন নেই। প্রতিদিন এই খাবারগুলো পরিবর্তন করে খেতে পারেন।


এছাড়া প্রতিদিনের খাবার হিসেবে ১ বাটি সাদা ভাত, ২-৩ টা রুটি, ডাল, মাছ, মাংস ইত্যাদি পরিমাণ মত খাবেন। কখনো অতিরিক্ত পরিমাণে খাবেন না। অতিরিক্ত বেশি খেলে আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকবে না যা শরীরের ফিটনেস নষ্ট হয়ে যাবে।


সর্বশেষ কথাঃ মেয়েদের ফিটনেস ধরে রাখার উপায় সম্পর্কিত আর্টিকেলটি নিশ্চই আপনাদের অনেক উপকারে এসেছে। আর্টিকেলে শেয়ার করা টিপসগুলো চাইলে ছেলেরাও অনুসরণ করতে পারেন। যা মেয়েদের মত ছেলেদেরও এই টিপসগুলো অনেক বেশি কার্যকর হবে।

Previous Post Next Post