ইয়োগা বা যোগ ব্যায়াম করার উপকারিতা সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য জেনে নিন

আমরা সবাই কম বেশি নিশ্চই ইয়োগা বা যোগ ব্যায়াম সম্পর্কে শুনেছি। মূলত যোগ ব্যায়াম কি এবং কিভাবে করতে হয় তা আমাদের পূর্বের আর্টিকেলটি যারা পড়েছেন তারা নিশ্চই জানেন। আজকের এই আর্টিকেলে আমরা যোগ ব্যায়াম করার উপকারিতা সম্পর্কে জানবো। যোগ ব্যায়াম বা ইয়োগা করার উপকারিতা সম্পর্কে জানতে হলে অবশ্যই আর্টিকেলের শেষ পর্যন্ত থাকতে হবে।

আপনারা যদি ধৈর্য্য ধরে আর্টিকেলের শেষ অবধি পর্যন্ত সঙ্গে থাকেন তাহলে যোগ ব্যায়াম এর উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। যা এরপর থেকে আর আপনাদের মাঝে যোগ ব্যায়াম সম্পর্কে কোন ধরনের কনফিউশন থাকবে না। তাহলে আলোচনার মূল বিষয়ে যাওয়া যাক।


যোগ ব্যায়াম করার উপকারিতা


নিয়মিত ইয়োগা বা যোগ ব্যায়াম করলে অনেক ধরনের উপকারিতা পাওয়া যায়। যোগ ব্যায়ামের অনেকগুলো শাখা রয়েছে। যা প্রত্যেকটি যোগ ব্যায়াম শরীরের জন্য ভিন্ন ভিন্ন ভাবে উপকারিতা হিসেবে কাজ করে। যোগ ব্যায়ামের উপকারিতা পেতে হলে সবগুলো ব্যায়াম কম বেশি নিয়মিত করতে হবে।


যোগ ব্যায়াম করার উপকারিতা হচ্ছে -

  • উদ্বেগ ও মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে।
  • শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা বাড়াতে কার্যকরী ভূমিকা রাখে।
  • ফুসফুসকে অনেক বেশি শক্তিশালী করে এবং সেই সাথে কার্যক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে।
  • শরীরের বিভিন্ন ধরনের ব্যাথা দূর করতে সাহায্য করে। (যেমন - ব্যাক পেইন, নেক পেইন ইত্যাদি)
  • রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।
  • অনিদ্রা জনিত সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।
  • রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর ক্ষেত্রে যথেষ্ট সহায়ক।
  • স্মৃতি শক্তি বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে।

ইয়োগা করার উপকারিতা


উপরের অনুচ্ছেদের মাধ্যমে আপনারা নিশ্চই যোগ ব্যায়াম এর উপকারিতা গুলো জানতে পেরেছেন। সঠিক নিয়ম অনুসরণ করে আপনারা যদি নিয়মিত যোগ ব্যায়াম করেন তাহলে দ্রুত এর উপকারিতা পাবেন। আবারো বলছি, যোগ ব্যায়াম বা ইয়োগা করার উপকারিতা হিসেবে যেগুলো পাবেন। যেমন - তীব্র মানসিক চিন্তা থেকে মুক্তি, অনিদ্রা সমস্যা থেকে দ্রুত মুক্তি, রক্ত চলাচল বৃদ্ধি, ফুসফুসের কার্যকারীতা বৃদ্ধি সহ বিভিন্ন উপকারিতা পাবেন।


সকালে যোগ ব্যায়াম


সাধারণত সকালে খালি পেটে যোগ ব্যায়াম করলে বেশি কার্যকারিতা পাওয়া যায়। তার জন্য প্রতিদিন নিয়মিত ঘুম থেকে উঠে সঠিক নিয়মে যোগ ব্যায়ামে করতে হবে। দিনের যেকোনো সময় যোগ ব্যায়াম করা যেতে পারে। তবে দ্রুত কার্যকারিতা এবং ভালো ফলাফল পেতে সকালে যোগ ব্যায়াম করা প্রয়োজন।


ওজন কমানোর যোগ ব্যায়াম


আমরা ইতিমধ্যে জেনেছি যোগ ব্যায়ামের অনেকগুলো শাখা রয়েছে। প্রত্যেকটি যোগ ব্যায়াম শাখা ভিন্ন ভিন্ন কাজে উপকারিতা হিসেবে কাজ করে। তার মধ্যে ওজন কমানোর ক্ষেত্রে অনেক যোগ ব্যায়াম বেশ কার্যকর। শরীরের ওজন কখনো দ্রুত কমানো সম্ভব নয়। তার জন্য অবশ্যই সময় দিয়ে ইয়োগা বা যোগ ব্যায়াম করতে হবে। 


হাই প্রেসার কমানোর যোগ ব্যায়াম


অনেকের উচ্চ রক্তচাপ জনিত সমস্যা রয়েছে। এর থেকে মুক্তি পেতে অনেক ধরনের ওষুধ খেতে হয় এবং খাদ্য তালিকা ঠিক রাখতে হয়। কিন্তু নিয়মিত যোগ ব্যায়াম করলে উচ্চ রক্তচাপ বা হাই প্রেসার কমাতে সাহায্যে করে। যা সঠিক নিয়ম মেনে নিয়মিত যোগ ব্যায়াম করলে হাই প্রেসার কমানোর জন্য ওষুধ কিংবা খাদ্য তালিকা নিয়ে তেমন কোন চিন্তা করতে হবে না।


ডায়াবেটিস রোগীর জন্য যোগ ব্যায়াম


আপনারা জানেন ডায়াবেটিস রোগীদের শরীর ঠিক রাখতে নিয়মিত ব্যায়াম করার প্রয়োজন হয়। আর এসব ব্যায়াম হিসেবে ইয়োগা বা যোগ ব্যায়াম বেশ কার্যকরী। সাধারণত যোগ ব্যায়াম করলে ডায়াবেটিসের জন্য আলাদা কোন ব্যায়ামের প্রয়োজন হয় না। নিয়মিত যোগ ব্যায়াম করলে ডায়াবেটিস রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।


লম্বা হওয়ার যোগ ব্যায়াম


ইয়োগা বা যোগ ব্যায়াম করার সময় নানা ভাবে করতে হয়। যা শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে টান পড়ে যায়। এসব টান পড়া লম্বা হওয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে। যারা কম বয়সী ছেলে-মেয়ে রয়েছে তারা যদি নিয়মিত এই যোগ ব্যায়াম করে তাহলে দ্রুত লম্বা হতে পারবে। তার জন্য অবশ্যই প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে যোগ ব্যায়াম করতে হবে।


সর্বশেষ কথাঃ উপরের আলোচনার মাধ্যমে আপনারা নিশ্চই যোগ ব্যায়াম করার উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। আমরা যোগ ব্যায়াম বা ইয়োগা করার উপকারিতা নিয়ে সহজ ভাবে আলোচনা করার চেষ্টা করেছি। আশা করি আপনাদের বুঝতে কোন অসুবিধা হয়নি। এ ধরনের গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল নিয়মিত পড়ার জন্য আমাদের সঙ্গে থাকুন। 

Previous Post Next Post